হার্দিকের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলা নিয়ে শঙ্কা!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ায় লিগের (আইপিএল) এবারের আসরে কোনো ম্যাচেই বল করেননি হার্দিক পান্ডিয়া। অথচ তাকে অলরাউন্ডার বিবেচনায় রাখা হয়েছে ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্কোয়াডে!

বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হার্দিক শতভাগ ফিট না হলে, পরিবর্তন আসতে পারে ভারতের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে।

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) নতুন নিয়ম অনুযায়ী আগামী ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্বকাপ স্কোয়াডে পরিবর্তন আনতে পারবে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। বিসিসিআইয়ের এই কর্মকর্তার মতে, আইসিসির বেধে দেওয়া সময়ের আগে হার্দিকের ফিটনেসে উন্নতি না হলে ভিন্ন পথে হাটবে ভারতের টিম ম্যানেজমেন্ট।

সেক্ষেত্রে হার্দিকের বাদ পড়ার সম্ভাবনাই বেশি। অন্যদিকে কপাল খুলতে পারে দীপক চাহার বা শার্দুল ঠাকুরের। তারা দুজনই স্ট্যান্ডবাই হিসেবে আছেন ভারতের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে। পাশাপাশি চলমান আইপিএলেও দুজনই ফর্মে আছেন। তাই কোনো কারনে হার্দিক জায়গা হারালে, সাম্প্রতিক ফর্ম বিবেচনায় দলে জায়গা পেতে পারেন এই দুইজনের যেকোনো একজন।

বিসিসিআই কর্মকর্তা বলেন, ‘কোনো কারণে হার্দিক যদি বোলিং করতে না পারে তাহলে শার্দুল ঠাকুর বা দীপক চাহারকে স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে। ভারতের ১৫ জনের স্কোয়াডে অন্তত আরও একজন পেসার প্রয়োজন। স্ট্যান্ডবাই হিসেবে দলে শার্দুল ঠাকুর এবং দীপক চাহারকে রাখা হয়েছে। শার্দুল ব্যাট-বল দুই জায়গাতেই ভালো করছে অন্যদিকে চাহারও ফর্মে আছে।’

যদিও কিছু দিন আগেই ভারতের বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করে বিসিসিআইয়ের প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা জানিয়েছিলেন, ‘হার্দিক পুরোপুরি ফিট আছে’। এমনকি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হার্দিকের বোলিং করতে পারার নিশ্চয়তাও দিয়েছিলেন শর্মা।

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •