প্রতিষ্ঠানের পরিচালকদের সিআইবি তথ্য হালনাগাদের নির্দেশ

ঋণ নেওয়া প্রতিষ্ঠানের পর্ষদের পরিচালকের সিআইবি তথ্য হালনাগাদ করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আজ রোববার (১০ অক্টোবর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ঋণ তথ্য ব্যুরো (সিআইবি) থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

দেশে কার্যরত সব তফসিলি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ঋণগ্রহীতা প্রতিষ্ঠানের সিআইবি ডাটাবেইজ সংশোধনের জন্য ব্যুরোতে আবেদনপত্র পাঠানোর আগে আবেদনকারী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান অবশ্যই তার গ্রাহককে ঋণ দানকারী সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সাথে এ বিষয়ে যোগাযোগ করতে হবে।

আবেদনকারী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং এ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে তাদের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান স্বাক্ষরিত কার্যবিবরণীর প্রথম ও সর্বশেষ পৃষ্ঠাসহ উপর্যুক্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত সম্বলিত পৃষ্ঠার সত্যায়িত কপি অথবা ঋণ অনুমোদনকারী কর্তৃপক্ষের একস্তর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের সত্যায়িত কপি ব্যুরোতে দাখিল করবে।

আবেদনকারী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে আবেদনপত্রের সাথে নির্দিষ্ট ফর্ম, বোর্ড মেমো, মেমোরেন্ডাম অ্যান্ড আর্টিকেল অব এসোসিয়েশন এবং বিভিন্ন সময়ে ব্যুরোর নির্দেশিত অন্যান্য দলিল সত্যায়িত কপি সংযুক্ত করতে হবে।

ব্যুরোতে আবেদনপত্র পাঠানোর আগে ঋণগ্রহীতা প্রতিষ্ঠানের নতুন পরিচালকদের সিআইবি ডাটাবেইজে ব্যাচ কন্ট্রিবিউশনের মাধ্যমে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

ঋণগ্রহীতা প্রতিষ্ঠানের বিদায়ী পরিচালকের ব্যক্তিগত গ্যারান্টি অথবা অন্য কোন প্রতিষ্ঠানের কর্পোরেট গ্যারান্টি অথবা উভয় গ্যারান্টি বহাল থাকলে আবেদনপত্র পাঠানোর আগেই সিআইবি ডাটাবেইজে ব্যাচ কন্ট্রিবিউশনের মাধ্যমে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

আবেদনকারী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে ঋণগ্রহীতা প্রতিষ্ঠানের বোর্ড রেজুলেশন এবং প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়েছে, ঋণগ্রহীতা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের পরিবর্তন সিআইবি ডাটাবেইজে বাস্তবায়নের জন্য ঋণদাতা ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বরাবর আবেদনপত্রের সত্যায়িত কপি দিতে হবে। নির্দেশনার তিন মাসের মধ্যেও যদি সিআইবি দলিলাদি গৃহীত না হয় তাহলে আবেদনকারী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দাখিল করা আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে। প্রয়োজনে এ বিষয়ে পরবর্তীতে নতুন আবেদনপত্র ব্যুরোতে দাখিল করতে হবে। এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে।

অর্থসূচক/এমএস/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •