বিকেলে ভারত থেকে আসছে সেরামের ১০ লাখ টিকা

অবশেষে ভারত থেকে আসছে ১০ লাখ ডোজ করোনা ভাইরাসের টিকা। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনা ভাইরাসের টিকা পুনের প্ল্যান্টে উৎপাদন করে কোভিশিল্ড নামে বাজারজাত করছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় টিকা উৎপাদনকারী কোম্পানি সেরাম ইনস্টিটিউট।

আজ শনিবার (০৯ অক্টোবর) বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে টিকাগুলো পৌঁছাবে।

এর আগে ভারত সরকার সেরাম ইনস্টিটিউটকে বাংলাদেশে ১০ লাখ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকা (কোভিশিল্ড) টিকা রফতানির অনুমতি দিয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রের বরাত দিয়ে ওই দেশটির সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নেপাল ও মিয়ানমারেও ১০ লাখ ডোজ করে টিকা রফতানির অনুমতি দিয়েছে ভারত সরকার।

ভারতে তৈরি অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা সরবরাহে সেরাম বেক্সিমকোর সঙ্গে চুক্তি করেছিল। কিন্তু কোভিড পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ভারত গত মার্চ মাসের পর বিদেশে টিকা রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারত। ছয় মাস বিরতির পর আবারও বিশ্বে টিকা রফতানি শুরু করল ভারত।

কোভিড মোকাবিলায় তিন কোটি ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা কিনতে বাংলাদেশ ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি করেছিল। সেই চুক্তির আওতায় ভারত থেকে গত জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে ৭০ লাখ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা এ দেশে এসেছিল। তবে চুক্তির আওতায় আরও দুই কোটি ৩০ লাখ ডোজ টিকা ভারতের কাছ থেকে পাওয়ার অপেক্ষায় আছে বাংলাদেশ। ওই চুক্তির বাইরে ভারতে তিন দফায় বাংলাদেশকে উপহার হিসেবে ৩৩ লাখ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা দিয়েছে।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ভারত বিশ্বের ৯৫টি দেশকে উপহার ও রফতানি হিসেবে ছয় কোটি ৬৩ লাখ ৬৯ হাজার ৮০০ ডোজ টিকা পাঠিয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশের এক কোটি তিন লাখ ডোজ রয়েছে, যা বিশ্বে ভারতের মোট উপহার ও রফতানির ছয় ভাগের এক ভাগ।

অর্থসূচক/কেএসআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •