জামিন পেলেন না শাহরুখ পুত্র, ১৪ দিনের জেল

সবাই আশা করছিলেন আজকের শুনানিতে হয়তো জামিন পাবেন শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। কিন্তু সেটা হয়নি। ১৪ দিনের জন্য আরিয়ানকে জেলহাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে মুম্বাই আদালত।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) আইনজীবীর দাবি মতো আরিয়ানসহ বাকি আটকদের তাদের হেফাজতে রাখার আর্জি খারিজ করে দেন আদালত।

বিচারপতি দাবি করেন, এনসিবি তাদের হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যথেষ্ট সময় পেয়েছেন। আর প্রয়োজন নেই।

এরপরই আরিয়ানদের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারপতি।

তবে সঙ্গে সঙ্গে আরিয়ানদের অন্তর্বর্তী জামিনের আবেদন করেন শাহরুখ নিযুক্ত আইনজীবী। সেই অন্তর্বর্তী জামিনের শুনানি হবে আগামীকাল শুক্রবার বেলা ১১টায়।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) পর্যন্ত আরিয়ানকে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। চারদিন এই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার রুদ্ধদ্বার কক্ষে কাটিয়েছেন আরিয়ান। চলেছে জিজ্ঞাসাবাদ।

এনসিবি সূত্রে জানা গেছে, জেরার সময় সহযোগিতা করেছেন শাহরুখপুত্র। তবে তার কাছ থেকে কোনো মাদক মেলেনি।

কিন্তু আপাতত বহাল থাকবে তার বন্দিদশা। সন্ধ্যা ৬টার পর কোভিড রিপোর্ট ছাড়া জেলে প্রবেশাধিকার নেই। তাই আরিয়ানকে আপাতত এনসিবির হেফাজতে রাখার অনুরোধ করা হয়েছে।

তদন্তের আরও গভীরে যাওয়ার জন্য আরিয়ান এবং সঙ্গীদের হেফাজতে রাখা প্রয়োজন বলে যুক্তি দেওয়া হয় এনসিবির তরফে।

সম্প্রতি মাদকতরীর পার্টিতে উপস্থিত অচিত কুমারকে আটক করে এনসিবি। ৯ অক্টোবর পর্যন্ত তাদের হেফাজতে থাকবেন অচিত।

শাহরুখপুত্রের আইনজীবী জানান, আরবাজ এবং অচিতের কাছ থেকে খুব অল্প পরিমাণ মাদক উদ্ধার হয়েছে। মানশিন্ডে জানিয়েছেন, তাদের সঙ্গে আরিয়ানের পরিচয় আছে। কিন্তু সেই পার্টিতে আরিয়ান কারও থেকে মাদক সংগ্রহ করেননি।

শাহরুখপুত্রের আইনজীবীর মতে, চারদিন আরিয়ানকে হেফাজতে রাখার পরও আসল অপরাধীকে এখন পর্যন্ত খুঁজে বের করতে পারেনি এনসিবি। আরিয়ান নাকি পার্টির জাঁকজমক আরও বাড়িয়ে দিতেই সেখানে গিয়েছিলেন।

অর্থসূচক/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •