নেত্রকোনায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের ৩ জনের মৃত্যু

নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে আশ্রয়ণ প্রকল্পের নির্মাণাধীন ঘরে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (০৬ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের বয়রা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- বয়রা গ্রামের মৃত কিতাব আলীর ছেলো আইবুল মিয়া (৫০), তার স্ত্রীর আবেদা আক্তার (৪০) ও মেয়ে পিংকি আক্তার (২৫)।

খাজিলিয়াজুরী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি জানান, উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের বয়রা গ্রামের আইবুল মিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ পান। ঘরের নির্মাণকাজ প্রায় শেষের পথে। তার নামে বরাদ্দকৃত ঘরটিতে তিনি মোটরের সাহায্যে পানি দিয়ে আসছিসেলেন কয়েকদিন ধরে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি ঘরে পানি দিতে গিয়ে সেখানে থাকা ছেঁড়া তারে অসাবধানতাবশত জড়িয়ে যান।

এ সময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে স্ত্রী আবেদা আক্তারও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তখন মা ও বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে যান মেয়ে পিংকী। তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পিংকীর কোলে তখন তার ১৮ মাসের মেয়ে তাসছিম আক্তার ছিল। শিশুটি বিদ্যুৎস্পর্শের সময় তার মায়ের কোল থেকে ছিটকে পড়ে গিয়ে আহত হয়। স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে খালিয়াজুরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকেই মৃত ঘোষণা করেন। মৃতদেহগুলো উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে।

খালিয়াজুরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক প্রসেনজিৎ দাস জানান, হাসপাতালে আনার আগেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট তিনজনই মারা গেছেন। আহত শিশুটির অবস্থা গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে খালিয়াজুরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএইচ এম আরিফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অর্থসূচক/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •