পুলিশ কর্মকর্তাকে পিষে দিল বাস

রংপুর নগরীর হাজিরহাট এলাকায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী রংপুর সদর থানার এএসআই আরিফুজ্জামান নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন তার স্ত্রী ও সন্তান। তাদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) রাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রংপুর সদর থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, রাতে রংপুর সদর থানার এএসআই আরিফুজ্জামান তার স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে পাগলাপীর এলাকা থেকে রংপুর নগরীতে আসছিলেন। এ সময় হাজিরহাটের কোল্ড স্টোরেজের সামনে রুপা এন্টারপ্রাইজ পরিবহনের একটি বাস তাদের চাপা দেয়। বাস পিষে দেওয়ায় এএসআই আরিফুজ্জামান গুরুতর আহত হন। তার স্ত্রী ও ছেলে আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দেড়টার দিকে আরিফুজ্জামান মারা যান। তার স্ত্রী ও ছেলে আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর সদর থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বলেন, নিহত এএসআই আরিফুজ্জামানের লাশ রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর তার লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। রুপা এন্টারপ্রাইজের বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক ও তার সহাকারী পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •