কিউকমের সিইও গ্রেপ্তার

অনলাইন প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে কিউকম কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রিপন মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)।

রোববার (৩ অক্টোবর) রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিএমপি মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ বিষয়ে সোমবার (৪ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

জানা যায়, অন্যান্য ই-কমার্স সাইটের মতো কিউকমও চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতো। প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জসহ কয়েকটি ই-কমার্স সাইটের মালিকদের বিরুদ্ধে মামলা এবং গ্রেফতারের পর সম্প্রতি অফিস বন্ধ করে দেয় কিউকম। এ ই-কমার্স সাইটটির বিরুদ্ধে গ্রাহকদের পণ্য সঠিক সময়ে ডেলিভারি না দেওয়াসহ টাকা আটকে রাখার অভিযোগ রয়েছে।

এরই মধ্যে এসব ইকমার্স সাইটের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে বেশ কিছু ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে। হাইকোর্ট থেকেও এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কিউককমসহ ১০ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংক, দুদকসহ বিভিন্ন সংস্থার পক্ষ থেকে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

কিউকমের সিইও রিপন মিয়ার ফেসবুক ফেজ ও বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, মালয়েশিয়া থেকে পড়াশোনা করেছেন তিনি। সেখানে তিনি মাল্টিলেভেল ও ফুট মার্কেটিংয়ের কোর্স করেছেন এবং সেখানে কিছুদিন ব্যবসাও করেছেন। ২ বছর আগে তিনি দেশে এসে ঢাকার পান্থপথে একটি অফিস ভাড়া করে মাল্টিলেভেল মার্কেটিংয়ের অফিস খুলেন। কিন্তু, সেই ব্যবসায় তিনি কোনো লাভ করতে না পারার কারণে অফিসটি বন্ধ করে দেন।

এছাড়া পণ্য দেওয়ার নাম করে গ্রাহকের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা সংগ্রহ করেছে তারা। কিন্তু, অনেক গ্রাহককে তারা পণ্য বুঝিয়ে দেয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •