৯৮ ভাগ মানুষ সুপেয় পানির আওতায়: তাজুল ইসলাম

দেশের ৯৮ শতাংশ মানুষ সুপেয় পানির আওতায় এসেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেন, নিরাপদ পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন সরকারের একটি অগ্রাধিকারমূলক খাত। সবার জন্য নিরাপদ পানি সরবরাহ ও শতভাগ স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ।

আজ রোববার (০৩ অক্টোবর) রাজধানীর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরে আয়োজিত জাতীয় স্যানিটেশন মাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে প্রতি ছয় হাজার মানুষের জন্য একটি কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করা হয়েছে জানিয়ে তাজুল ইসলাম বলেন, যেকোনো প্রকল্প গ্রহণ করা হোক না কেন সচেতনতামূলক কার্যক্রম থাকা উচিত। করোনা, ডেঙ্গু, স্যানিটেশনসহ সামাজিক সব সমস্যা সমাধানে মানুষকে সচেতন করার বিকল্প নেই। সচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করে কমিউনিটিকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক-ছাত্রসহ সব মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের দায়িত্ব নিয়ে অল্পসময়ের মধ্যেই অভূতপূর্ব উন্নয়ন করতে সক্ষম হয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে জিডিপির প্রবৃদ্ধি সাড়ে নয় শতাংশের বেশি ছিল, যা এখন পর্যন্ত আমরা স্পর্শ করতে পারিনি। দেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করতে হলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে করলে আমরা অবশ্যই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও এ দেশের মানুষের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে পারবো।

বিএনপি দেশের মানুষকে বিভিন্ন মুখরোচক কথাবার্তার মাধ্যমে বিভ্রান্ত করছে মন্তব্য করেন তাজুল ইসলাম বলেন, বিএনপি দেশের মানুষকে এখন স্বর্গের স্বপ্ন দেখাচ্ছে। ক্ষমতায় থাকাকালীন দেশকে তারা নরক বানিয়ে রেখেছিল। যারা দীর্ঘ ২১ বছর ক্ষমতায় থেকে আমাদের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাতে পারেনি। এখন তারা নতুনভাবে অনেক রকম মুখরোচক কথাবার্তা বলে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। তাদের ভয়ংকর শাসনামল সম্পর্কে দেশের মানুষ ভালোভাবেই অবগত আছে।

তাজুল ইসলাম আরও বলেন, পেশাগতভাবে আমাদের ভিন্নতা থাকতে পারে কিন্তু দিন শেষে সবাই এ দেশের মানুষ। দেশটাকে নিয়ে অনেক সময় অনেক ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত হয়েছে এবং এখনো হচ্ছে। তাই আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে এসব অপশক্তির ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে হবে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য এবং বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি ভিরা মেনডোনকা বিশেষ অতিথি ছিলেন।

অর্থসূচক/কেএসআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •