ঢাবির দুই প্রকৌশলীসহ বরখাস্ত ৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দুই প্রকৌশলী ও একজন কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত এবং একজন কর্মকর্তাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের এক সভায় বরখাস্তের এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবারের (৩০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি স্থাপনায় বৈদ্যুতিক কাজ সংক্রান্ত এলবিএস ও সিটি পিটি ক্রয় ও সংস্থাপনে অনিয়ম এবং অফিস শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া অননুমোদিতভাবে কর্মস্থলে উপস্থিত না থাকা, অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং অফিস শৃঙ্খলা পরিপন্থী আচরণের প্রমাণ পাওয়ায় সংগীত বিভাগের একজন অস্থায়ী কর্মকর্তাকে চাকরি থেকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সাময়িকভাবে বরখাস্ত দুই জন প্রকৌশলী হলেন— প্রধান প্রকৌশলীর কার্যালয়ের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ জোন-১) মো. লুৎফর রহমান ও নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) খালেদুর রহমান চৌধুরী। আর সাময়িকভাবে বরখাস্ত কর্মকর্তা হলেন প্রধান প্রকৌশলীর অফিসের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ আবদুল হাই। সাময়িকভাবে বরখাস্ত প্রধান প্রকৌশলীকে কেন চাকরি থেকে স্থায়ীভাবে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হবে না- এই মর্মে কারণ দর্শানোর নোটিশ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এদিকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত কর্মকর্তা হচ্ছেন— সংগীত বিভাগের ডেমোনেস্ট্রেটর (অস্থায়ী) জাকির হোসেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্যকে (প্রশাসন) প্রধান করে ৫ সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •