মঙ্গলবার সারাদেশে রাইড শেয়ার চালকদের ধর্মঘট

কোম্পানিগুলোর কমিশন কমিনে আনা ও পুলিশি হয়রানি বন্ধসহ ৬ দফা দাবিতে মঙ্গলবার সারা দেশে ধর্মঘট ডেকেছেন অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারের গাড়িচালকরা। ‘অ্যাপ-বেইজড ড্রাইভার্স ইউনিয়ন অব বাংলাদেশ’ সংগঠনের ব্যানারে এ কর্মসূচি আহ্বান করা হয়েছে।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক বেলাল আহমেদ জানান, আমাদের কর্মবিরতি সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টা থেকে মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবে সামনে শান্তিপূর্ণ এক মানববন্ধন কর্মসূচিও অনুষ্ঠিত হবে। মানববন্ধনে সব দাবি তুলে ধরা হবে।

ধর্মঘটের ডাকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কোথাও গাড়ি ব্রেক করলে সেখানেই ট্রাফিক পুলিশ ধরে ফেলে। তাই আমরা স্থায়ী সমাধান হিসেবে রাইড শেয়ারিংয়ের যানবাহন রাখার জায়গা নির্ধারণের দাবি জানাচ্ছি।

বেলাল আহমেদ আরও বলেন, মোবাইল অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিংয়ের সঙ্গে আমরা যারা যুক্ত, তারা কোম্পানিগুলোর কাছে দীর্ঘদিন ধরেই বেশকিছু দাবি জানিয়ে আসছি। কিন্তু কোম্পানিগুলো আমলে নিচ্ছে না। তাই এবার আমরা সরকারের কাছে ৬টি দাবির বিষয় জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, কোম্পানির পক্ষ থেকে আমাদের একমাত্র সুবিধা হচ্ছে আমরা রাইড শেয়ারিংয়ের জন্য তাদের অ্যাপ ব্যবহার করছি। তারা ২৫ শতাংশ চার্জ কেটে নিচ্ছে।

বাড্ডায় একজন রাইড শেয়ারের চালকের নিজ বাইকে আগুন দেওয়া প্রসঙ্গে বেলাল আহমেদ বলেন, বাড্ডার ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক। হয়রানির জন্য একজন চালক তার মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে আমরা কয়েক দফা জানিয়েছি, কিন্তু কোনো প্রতিষ্ঠান আমাদের দাবি গ্রহণ করেনি। আমরা ষষ্ঠবারের মতো আন্দোলনে যাচ্ছি। আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করব, কোনো সহিংসতায় আমরা বিশ্বাসী না।

অ্যাপ-বেইজড ড্রাইভারস ইউনিয়ন অব বাংলাদেশ ছয় দফার মধ্যে রয়েছে- রাইড শেয়ারিং চালকদের শ্রমিক হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান, রাইড শেয়ারিংয়ের কমিশন ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ নির্ধারণ, ঢাকাসহ বড় শহরগুলোতে রাইড শেয়ারিং যানবাহন দাঁড়ানোর জায়গা বরাদ্দ, পুলিশি হয়রানি বন্ধ, রাইড শেয়ারিংয়ে তালিকাভুক্ত যানবাহনগুলোকে অগ্রিম আয়করের বাইরে রাখা এবং গত বছর রাইড শেয়ারিং যানবাহনের কাছ থেকে আদায়কৃত অগ্রিম আয়কর মালিকদের ফেরত দেওয়া।

অর্থসূচক/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •