ছেলের গোল দেখেই মারা গেলেন বাবা

ক্লাব ফুটবলের হয়ে প্রথম গোল করে ছেলে যখন উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে, তখন হাসপাতালে শয্যাশায়ী বাবা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। এমনই হৃদয়বিদারক বাস্তবতাকে মেনে নিতে হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটির ডিফেন্ডার নাথান আকে। নেদারল্যান্ডসের জাতীয় দলের খেলোয়াড়ও তিনি।

চ্যাম্পিয়নস লিগে বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে গোলোৎসবে মাতে ম্যানচেস্টার সিটি। আরবি লাইপজিগকে ৬-৩ গোলে হারিয়েছে তারা।

এদিন ম্যাচের ১৬তম মিনিটে প্রথম গোলটি করেছিলেন আকে। তার ওই কীর্তি দেখেছিলেন ক্যান্সারে আক্রান্ত বাবা ময়েজ। এর পরই মারা যান তিনি।

নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে এমনটিই জানিয়েছেন সিটি তারকা আকে। সদ্য প্রয়াত বাবাকে উদ্দেশ্য করে ইনস্টাগ্রামে আকে লিখেছেন, ‘আমি জানি আপনি আমার সঙ্গে আছেন। সবসময় আমার হৃদয়ে থাকবেন। এই গোলটা আপনার জন্য, বাবা।’

ভক্ত-অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে আকে লিখেছেন, ‘গতকাল কিছু কঠিন সময়ের পর আমি চ্যাম্পিয়নস লিগে গোল করলাম। আর এর কয়েক মিনিট পরই বাবা মারা গেছেন। তখন আমার মা ও ভাই পাশে ছিল। আমার মনে হয় এটাই অর্থবহ, আমাকে খেলতে দেখলে সবসময় বাবা আনন্দিত হতো আর গর্ব অনুভব করত। গত কয়েক সপ্তাহ ছিল আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন। আমার বাবা খুব অসুস্থ ছিলেন আর কোনো চিকিৎসাও সম্ভব ছিল না। আমি খুব ভাগ্যবান যে আমার বাগদত্তা, পরিবার ও বন্ধুদের কাছ থেকে সমর্থন পেয়েছি।’

তথ্যসূত্র: গোল ডট কম।

অর্থসূচক/কেএসআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •