‘সারা দেশের মতো এখানে প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হোক আমি চাই না’

নির্বাচন কমিশন (ইসি) প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন চায় না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম। তিনি বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন গ্রহণযোগ্য ও সুষ্ঠু করতে যা যা করা প্রয়োজন নির্বাচন কমিশন তাই করবে। প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন কারও জন্যই কাম্য নয়।

আজ মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নওগাঁ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নওগাঁর নিয়ামতপুর, মান্দা, মহাদেবপুর ও রাণীনগর উপজেলার নাগরিকদের মাঝে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

কবিতা খানম বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন গ্রহণযোগ্য ও সুষ্ঠু করতে যা যা করা প্রয়োজন, নির্বাচন কমিশন তা–ই করবে। প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন কারও কাম্য নয়।

‘নওগাঁয় আমার জন্ম। সারা দেশের মতো এখানে কোনো প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হোক, এটা আমি চাই না। এ জন্য ডিসি, এসপি, নির্বাচন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে মাঠপর্যায়ে যারা দায়িত্ব পালন করবেন, তারা যেন সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করেন।’

কবিতা খানম আরও বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে। পাশাপাশি দল-মত নির্বিশেষে নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের কাছ থেকেও নিরপেক্ষতা আশা করব।

নওগাঁর জেলা প্রশাসক (ডিসি) হারুন-অর-রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন নির্বাচন কমিশনের আইডিইএ (আইডেনটিফিকেশন সিস্টেম ফর অ্যানহ্যান্সিং অ্যাকসেস টু সার্ভিসেস) প্রকল্পের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল কাশেম মো. ফজলুল কাদের।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম মামুন খান চিশতী, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রুহুল আমীন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথিদের বক্তব্য শেষে আমন্ত্রিত কিছু নাগরিকের হাতে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র তুলে দিয়ে জেলার নিয়ামতপুর, মান্দা ও মহাদবেপুর ও রাণীনগর উপজেলায় স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ইসি কবিতা খানম।

অর্থসূচক/কেএসআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •