আরও একটি সপ্তাহ রেকর্ড উত্থান পুঁজিবাজারে

আগের সপ্তাহের মতো সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহেও সব ধরেনের মূল্য সূচক রেকর্ড উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৭ হাজার ২০০ পয়েন্টের মাইলফলক অতিক্রম করেছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে বাজার মূলধনেও হয়েছে নতুন রেকর্ড। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে বাজার মূলধন বেড়েছে ৪.০১ শতাংশ বা সাড়ে ২২ হাজার কোটি টাকার।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেনও বেড়েছে। আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে ৫ কর্মদিবস লেনদেন হয়েছে। আর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে ৪ কর্মদিবস লেনদেন হয়েছিল।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৩ হাজার ৮৮৮ কোটি ১৮ লাখ ২৪ হাজার ৬৮৬ টাকার শেয়ার। আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৮ হাজার ৯৩৬ কোটি ৮৯ লাখ ৫৪ হাজার  টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে ৪  হাজার ৯৫১ কোটি ২৮ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৮ টাকার বা ৫৫.৪০ শতাংশ লেনদেন বেড়েছে।

ডিএসইতে প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স সপ্তাহের ব্যবধানে ২৭৭ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বা ৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ বেড়ে ৭ হাজার ২৫৮.৭৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। যা সূচকটির ইতিহাসে এখন পরযন্ত সর্বোচ্চ উত্থান।

আলোচিত সপ্তাহে বাজারমূলধনে শীর্ষ ৩০ কোম্পানির মূল্যসূচক ডিএস৩০ আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৫০ দশমিক ৩০ পয়েন্ট বা ৬ দশমিক ০২ শতাংশ বেড়ে  ২ হাজার  ৬৪৭.১৪ পয়েন্টে উঠেছে।

অন্যদিকে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক বেড়েছে ৫.৫৪ পয়েন্ট বা ৮৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

ডিএসইতে গত সপ্তাহে ৩৮২টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কেনাবেচা হয়। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ২১০টির, কমেছে ১৫৫টির। আর ১৩টির দাম ছিল অপরিবর্তিত।

এদিকে গত সপ্তাহে ডিএসইতে বাজার মূলধন বেড়েছে  ২২ হাজার ৬০৩ কোটি ৩১  লাখ ৩৮ হাজার টাকার বা ৪ দশমিক ০১ শতাংশ।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৫ লাখ ৬৩ হাজার ৭১৫ কোটি ৬৪ লাখ ২৩ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৩১৮  কোটি ৯৫ লাখ ৬১ হাজার টাকায়।

অর্থসূচক/এসএ/

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •