খন্দকার মাহবুবের অবস্থা সংকটাপন্ন

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি, প্রখ্যাত ফৌজদারি আইন বিশেষজ্ঞ অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন। তার অবস্থা সংকটাপন্ন।

বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকালে তার জুনিয়র অ্যাডভোকেট মো. মাসুদ রানা বলেন, চিকিৎসক বলেছেন, খন্দকার মাহবুব হোসেনের কিডনি, ব্রেনসহ অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ স্বাভাবিকভাবে কাজ করছে না।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে তার তিন সন্তান দেশে এসেছেন। স্ত্রী ড. ফারহাত হোসেন হাসপাতালে অবস্থান করছেন। খন্দকার মাহবুব হোসেনের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছে পরিবার।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তি হন দেশবরেণ্য এই আইন বিশেষজ্ঞ। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেনকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্ট নেওয়া হয়। গত ১৬ আগস্ট করোনা আক্রান্ত অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেনকে এ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন ১৯৬৭ সালের ৩১ জানুয়ারি আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হন। এরপর একই বছরের ২০ অক্টোবর তিনি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন। দেশের আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন ১৯৩৮ সালের ২০ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। শিক্ষাজীবন সম্পন্নের পর তিনি ১৯৬৭ সালের ৩১ জানুয়ারি জেলা আদালতে আইনজীবী হিসেবে পেশা শুরু করেন। এরপর একই বছরের ২০ অক্টোবর হাইকোর্ট বিভাগে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন।

একাত্তরে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাকিস্তান বাহিনীকে সহযোগিতাকারীদের দালাল আইনে ১৯৭৩ সালে বিচারের সময় চিফ প্রসিকিউটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এ আইনজীবী। সর্বশেষ ২০০৮ সালে বিএনপিতে যোগ দেন। তিনি বর্তমানে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •