আইসিডি ফিনোভেশন অ্যাওয়ার্ড পেল গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল

বাংলাদেশের স্বনামধন্য মার্চেন্ট ব্যাংক গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেড (জিডিসিএল) সম্প্রতি তাদের ডিস্ক্র্যাশনারি পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট স্কিম ‘জিডি প্ল্যানার’ -এর জন্য আন্তর্জাতিকভাবে সমাদৃত আইসিডি’র ফিনোভেশন অ্যাওয়ার্ড ২০২০-এ পুরস্কৃত হয়েছে।

টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের আর্থিক অন্তর্ভুর্ক্তিতে গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটালের ‘জিডি প্ল্যানার’ পরিষেবার উল্লেখযোগ্য প্রভাব এবং অবদানের স্বীকৃতিস্বরুপ গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেডকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।

‘জিডি প্ল্যানার’ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষায়িত একটি ডিস্ক্র্যাশনারি পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট স্কিম, যার মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা তাদের সুবিধা অনুযায়ী নিয়মিত ব্যবধানে স্বল্প পরিমাণ বিনিয়োগ করতে পারবেন যা সময়ের সাথে আশানুরূপ ভাবে জিডিসিএল-এর তত্ত্বাবধানে মুনাফা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

আইসিডি’র ফিনোভেশন অ্যাওয়ার্ড ২০২০-এর আনুষ্ঠানিক পুরস্কার বিতরণী গত ৩ সেপ্টেম্বর উজবেকিস্তানের রাজধানী তাশখন্দে ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (আইডিবি) গ্রুপের বার্ষিক সভায় অনুষ্ঠিত হয়। এই অনুষ্ঠানে আইডিবির সদস্য দেশগুলির অর্থ, উন্নয়ন, অর্থনীতি এবং কূটনৈতিক মন্ত্রীবৃন্দের উপস্থিতিসহ কূটনৈতিক মহল এবং অনেক আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক সংস্থার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। আমন্ত্রিতদের উপস্থিতিতে গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম, আইসিডি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আয়মান এ সেজিনির কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন।

গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটালের ১১ বছরের কার্যমেয়াদে প্রতিষ্ঠানটি গ্রাহকদের জন্য বিভিন্ন সময়োপযোগী উদ্ভাবনী পরিষেবার মাধ্যমে ওয়ান-স্টপ ইনভেস্টমেন্ট সল্যুশন প্রদান করে এই খাতে একটি শক্তিশালী অবস্থান বজায় রেখেছে। স্টক মার্কেটে বিনিয়োগে আগ্রহী ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষভাবে প্রণীত গ্রীন ডেল্টা ক্যাপিটালের এমনই একটি উদ্ভাবনী পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট স্কিম জিডি প্ল্যানার। যারা ইক্যুইটি মার্কেটের অস্থিতিশীলতা বা পুঁজিবাজার সম্পর্কে যথেষ্ট ধারণার অভাবে স্টক মার্কেটে বিনিয়োগ করতে ভয় পাচ্ছেন, সেসকল ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্যই কম ঝুঁকিতে বেশি লভ্যাংশ অর্জনের জন্য ‘জিডি প্ল্যানার’ পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট স্কিমটি উপযোগী।

এবিষয়ে জিডিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, জিডি প্ল্যানার শুধুমাত্র ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সেকেন্ডারি মার্কেট সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি করেনি, বরং তাদের জন্য জন্য পুঁজিবাজারের দরজাও খুলে দিয়েছে। জিডি প্ল্যানার প্রাথমিকভাবে আমাদের জন্য সাংগঠনিক সাফল্যের একটি মাইলফলক যা একই সাথে সামগ্রিক পুঁজিবাজারে এক নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

‘জিডি প্ল্যানার’ পরিষেবাটি চালু হওয়ার স্বল্প সময়ের মধ্যেই বিপুল সংখ্যক ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়াও জিডি প্ল্যানার-এর আওতায় বিনিয়োগকারী গ্রাহকরা পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট সেবার পাশাপাশি দুর্ঘটনাজনিত কারণে প্রতি বছর ১ লাখ টাকা পর্যন্ত এক্সিডেন্টাল ইন্স্যুরেন্স কাভারেজ পাবেন।

অর্থসূচক/কেএসআর