ঢাকার চারপাশে চক্রাকার উড়াল সড়ক নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকার চারপাশে নদীর পাড়ের অংশে জায়গা কম, ফলে এলিভেটেড ওয়ে নির্মাণ করতে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ মঙ্গলবার (০৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শেরে বাংলানগরে অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে এ নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, যেহেতু জায়গার স্বল্পতা রয়েছে, সেহেতু এলিভেটেড (উড়াল) হলে ভালো।

এ ছাড়া পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের জন্য ফ্ল্যাট নির্মাণ প্রকল্পে তাদের কাছ থেকে ভাড়া না নেওয়ার নির্দেশও দিয়েছেন শেখ হাসিনা। তবে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সামান্য অর্থ নেওয়ার কথা বলেছেন তিনি।

বৈঠক শেষে এক ব্রিফিংয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার বিষয়গুলো জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, শীতলক্ষ্যা ও বালু নদীর তীরভূমিতে পিলার স্থাপন, তীর রক্ষা, ওয়াকওয়ে ও জেটিসহ আনুষঙ্গিক অবকাঠামো নির্মাণ (দ্বিতীয় পর্যায়, প্রথম সংশোধিত) প্রকল্প অনুমোদনের সময় ঢাকার চারপাশে এলিভেটেড ওয়ে নির্মাণ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, ঢাকার চারপাশে এলিভেটেড ওয়ে করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। কারণ ঢাকার চারপাশে জমি কম। যাতে করে সদরঘাট ও ওয়াইজঘাটের মতো অবস্থা না হয় সেই জন্য ঢাকার চারপাশে এলিভেটেড ওয়ে নির্মাণ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ নিয়েছেন। যাতে করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিল্প কিংবা আবাসনের বর্জ্য পরিশোধন ছাড়া নদীতে ফেলা যাবে না। প্রয়োজনে সমন্বিত ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট করে ব্যবস্থা নিতে হবে। উপকূলে বাঁধ কেটে যেন চিংড়ি চাষের প্রয়োজনীয় নোনা পানি ব্যবসায়ীরা ভেতরে প্রবেশ করাতে না পারে সে বিষয়ে নজরদারি বাড়াতে হবে।

বাঁধের নকশা চিংড়ি চাষের সহায়ক করে তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। নোনা পানি প্রবেশ করানোর জন্য আলাদা ড্রেনেজ উৎস তৈরি করতে বলেছেন। এখাতে চিংড়ি চাষিদের ব্যয় বহন করতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

অর্থসূচক/কেএসআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •