ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ বাতিল: যা বললো ফিফা

ফুটবল ইতিহাসে প্রথমবার এই ঘটনা ঘটলো। করোনার বিধি না মানায় আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের ম্যাচ বাতিল হলো। মাত্র পাঁচ মিনিট খেলা হয়। তারপরই ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা পুলিশ নিয়ে মাঠে ঢুকে খেলা বন্ধ করে দেন।

ব্রাজিলে এই ম্যচের দিকে নজর ছিল সারা বিশ্বের ফুটবল অনুরাগীদের। নেইমার বনাম মেসি লড়াই হবে কি না, হলে কে কাকে টপকে যাবেন, তা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে বিতর্ক কম হয়নি। কিন্তু সেই ম্যাচই হলো না। মেসি-নেইমারের দ্বৈরথ দেখা হলো না ফুটবল অনুরাগীদের।

ঘটনা হলো, ইংল্যান্ড থেকে ব্রাজিলে আসেন আর্জেন্টিনার চার ফুটবলার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া, এমিলিয়ানো মার্তিনেস, জিওভান্নি লো সেলসো এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোমেরো। কিন্তু ম্যাচের আগে নাম না করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়ে দেয়, ইংল্যান্ড থেকে আসা প্লেয়ারদের আগে নিভৃতবাসে থাকতে হবে। কিন্তু আর্জেন্টিনার কোচ স্কালোনি সেই নির্দেশ অগ্রাহ্য করে চারজনকে মাঠে নামান।

কোয়ারেন্টাইন পুরোপুরি না মানায় ইংল্যান্ডের প্রিমিয়ার লিগে খেলা আর্জেন্টিনার চার ফুটবলারকে কিছুইতেই এই ম্যাচে খেলতে দিবেন না ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। এটা নিয়ে চলে বাকবিতণ্ডা। ওই চার ফুটবলারকে ছাড়া আর্জেন্টিনাও খেলতে পারবে না। শেষ পর্যন্ত তারা মাঠ ছেড়ে উঠে যায়। ৪৫ মিনিট দেনদরবার চলার পর এই ম্যাচটি বাতিল হয়। আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা ড্রেসিংরুম ছেড়ে টিম বাস ধরে স্টেডিয়াম চত্বর ত্যাগ করেন।

এদিকে শুরু হয়েও ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচটি বাতিল হওয়ায় ব্যথিত হয়েছেন বিশ্বব্যাপী কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমী। যথারীতি ব্যথিত হয়েছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফাও। ফিফা এ বিষয়ে একটি বিবৃতিও দিয়েছে। সেখানে তারাও এমন কাণ্ডে ব্যথিত হয়েছে এবং ফুটবলপ্রেমীরা একটি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা লড়াই দেখা থেকে বঞ্চিত হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছে। এই ম্যাচে যা ঘটেছে সেটা ফিফার প্রতিযোগিতা আয়োজক কমিটিতে তোলা হবে এবং চুলচেরা বিশ্লেষণ শেষে শিগগিরই সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) ফিফার এক বার্তায় জানানো হয়, ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচে যা ঘটেছে সে ব্যাপারে ফিফা যারপরনাই ব্যথিত। পাশাপাশি এই কাণ্ডে বিশ্বব্যাপী কোটি কোটি ফুটবল ভক্ত ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মতো দুটি গুরুত্বপূর্ণ দলের খেলা দেখা থেকে বঞ্চিত হওয়ায় ফিফা দুঃখিত। এই ম্যাচের আনুষ্ঠানিক রিপোর্ট ফিফার কাছে এসে পৌঁছেছে। এই তথ্যগুলো ফিফার প্রতিযোগিতা আয়োজক কমিটি খতিয়ে দেখবে এবং শিগগিরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •