কোয়ারেন্টাইন বিতর্কে শুরুর পর ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ স্থগিত

সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল, খেলা শুরুর পর চলল মিনিট পাঁচেক। এরপর বন্ধ! মূলত কোয়ারেন্টাইন বিধি নিয়েই সমস্যার উৎপত্তি। ব্রাজিলিয়ান হেলথ রেগুলেটরি এজেন্সির নির্দেশনা অনুযায়ী যুক্তরাজ্য, উত্তর আয়ারল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারত থেকে ব্রাজিলে প্রবেশ নিষিদ্ধ। যাদের স্বাস্থ্য ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে, তাদেরও ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন করতে হবে।

কিন্তু এই নিয়ম না মেনেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা চার খেলোয়াড়কে মাঠে নামিয়ে দিয়েছে আর্জেন্টিনা। তারা হলেন- এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া, এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, জিওভানি লো চেলসো ও ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো।

ম্যাচ শুরু হতেই মাঠে হানা দেয় ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। মাত্র তিনদিন আগেই ইংল্যান্ড থেকে ব্রাজিলে পা রাখা চার আর্জেন্টাইন খেলোয়াড় কী করে মূল একাদশে জায়গা করে নিলেন, এ নিয়ে শুরু হয় আর্জেন্টিনার ফুটবলার কর্তাদের সঙ্গে বাদানুবাদ। এই অবস্থায় রেফারি দ্রুত আর্জেন্টিনা দলকে ড্রেসিংরুমে পাঠিয়ে দেন। মাঠে তবু আলোচনা চলতে থাকে। ব্রাজিলের খেলোয়াড়রা তখনও মাঠ ত্যাগ করেননি। সম্ভবত তারা ম্যাচটি খেলতে চাইছিলেন। কিন্তু স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ সে অনুমোদন দেয়নি।

পরে এক পর্যায়ে লিওনেল মেসিকে নিয়ে মাঠে ঢুকতে দেখা যায় ব্রাজিলের দানি আলভেজকে। মেসি মাঠে ঢুকে ‘বন্ধু’ নেইমারের সঙ্গে অনেকক্ষণ কথা বলেন। কিন্তু ম্যাচ আর শুরু হওয়ার লক্ষণ দেখা যায়নি। শেষ পর্যন্ত স্থগিতই করা হয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত লড়াইটি।

ব্রাজিলিয়ান এক রেডিও জানিয়েছে, কোয়ারেন্টাইন ঝামেলা নিয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ম্যাচের দিন সকালেই সতর্ক করেছিলেন আর্জেন্টাইন কর্তৃপক্ষকে। কিন্তু তারা তা কানে নেননি। ম্যাচ শুরু হলে দেখা যায় ইংল্যান্ড থেকে আসা চার ফুটবলারকে নিয়েই একাদশ সাজিয়েছে আলবিসেলেস্তেরা।

রয়টার্স জানায়, কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভাঙার দায়ে আর্জেন্টিনার একাদশের তিন খেলোয়াড়ের খেলা নিয়ে আপত্তি জানায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তাদের অভিযোগের পর করিন্থিয়ান্স আরেনা ছেড়ে ড্রেসিং রুমে চলে যায় সফরকারীরা।

ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়-কোচদের স্বাস্থ্যা কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায়। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি পুরোটা সময় মাঠেই ছিলেন। তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও ব্রাজিল কোচ তিতের সঙ্গে কথা চালিয়ে যান। পরে এসে যোগ দেন মেসি। শেষ পর্যন্ত স্থগিত হয়ে গেলো ম্যাচ।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •