সিরিজ জিততে বাংলাদেশের দরকার ১২৯ রান

সিরিজ জয়ের মিশন নিয়ে আজ মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। আজ রোববার (০৫ সেপ্টেম্বর) নিউজিল্যান্ডকে হারাতে পারলেই দুই ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলবে টাইগাররা। এমন এক গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ে টাইগারদের সামনে ১২৯ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছে কিউইরা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে তারা তুলেছে ১২৮ রান।

মিরপুর শেরে বাংলায় সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে টসভাগ্য আজ সহায় ছিল না। টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। প্রতিপক্ষের দুর্বলতার কথা মাথায় রেখে বরাবরের মতো স্পিন দিয়ে আক্রমণ শুরু করেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

কিন্তু এবার শুরুতেই কিউইদের ধাক্কা দেওয়া যায়নি। শেখ মেহেদি হাসান প্রথম ওভারে দেন ১১ রান। দুই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে বসেন একাদশে ফেরা ফিন অ্যালেন।

নাসুম আহমেদ করেন ইনিংসের দ্বিতীয় ওভার। ওই ওভারের দ্বিতীয় বলেও একটি বাউন্ডারি হাঁকান অ্যালেন। যদিও নাসুম পরে ভালো বল করেছেন। ওভারে সবমিলিয়ে দেন মাত্র ৫ রান।

তৃতীয় ওভারে মোস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে আসেন মাহমুদউল্লাহ। প্রথম বলেই উইকেট। সেই অ্যালেন, যিনি কিনা মারমুখী ভূমিকায় দাঁড়িয়ে যাচ্ছিলেন। সফট ডিসমিসাল যাকে বলে! মোস্তাফিজের ফুলার ডেলিভারি বুঝতে না পেরে আলতো ব্যাট ছুঁইয়ে মিডঅনে ক্যাচ তুলে দেন অ্যালেন (১০ বলে ১৫)। মোস্তাফিজ ওই ওভারে নেন উইকেট মেইডেন।

তবে দ্বিতীয় উইকেটে চোখ রাঙানি দিচ্ছিল রাচিন রবীন্দ্র আর উইল ইয়ংয়ের জুটি। ২৬ বলে ৩১ রান যোগ করেন তারা। পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে ১ উইকেটে ৪০ রান তুলে কিউইরা। বেশ অস্বস্তিতেই পড়ে গিয়েছিল স্বাগতিক দল।

সেই অস্বস্তি দূর করেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। সপ্তম ওভারে এসে তিন বলের ব্যবধানে নিউজিল্যান্ডের দুই ব্যাটসম্যানকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন টাইগার পেসার। ওভারের চতুর্থ বলে তার শিকার ইয়ং (২০), ষষ্ঠ বলে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম (০)।

দশম ওভারে মাহমুদউল্লাহর ঘূর্ণিতে বোল্ড হন রাচিন রবীন্দ্র (২০ বলে ২০)। পরের ওভারে আরও এক উইকেট হারায় কিউইরা, এবার দলের অধিনায়ক। শেখ মেহেদিকে এগিয়ে খেলতে গিয়ে ফিরতি ক্যাচ দেন টম ল্যাথাম (৯ বলে ৫)।

৬২ রানে ৫ উইকেট খুইয়ে ধুঁকতে থাকা নিউজিল্যান্ড দেখেশুনে এগোনোর চেষ্টা করে। ঝুঁকিপূর্ণ শট বাদ দিয়ে দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার কৌশল নেন হেনরি নিকোলস আর টম ব্লান্ডেল।

কৌশলটা মোটামুটি কাজে দিয়েছে বলা যায়। কিউই যুগল উইকেটে সেট হয়ে শেষদিকে হাত খুলেছেন। তাতে ষষ্ঠ উইকেটে ৫৫ বলে ৬৬ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে উঠে। নিউজিল্যান্ডও পায় লড়াকু পুঁজি। ব্লান্ডেল ৩০ বলে ৩০, নিকোলস ২৯ বলে ৩৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

অর্থসূচক/কেএসআর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •