পি কে হালদারের বান্ধবী রুনাইসহ দুজনকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

বহুল আলোচিত ও হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করে কানাডায় পালিয়ে যাওয়া প্রশান্ত কুমার হালদারের (পি কে হালদার) এক বান্ধবীসহ দুই জনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদক।

তারা হলেন‑ পি কে হালাদারের বান্ধবী ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের সাবেক ভিপি নাহিদা রুনাই ও ওকায়ামা লিমিটেডের পরিচালক শুভ্রা রাণী ঘোষ।

রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার খান।

চলতি বছরের ১৬ মার্চ সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে নাহিদা রুনাই ও ২২ মার্চ বিমানবন্দর এলাকা থেকে শুভ্রা রানী ঘোষকে গ্রেফতার করে দুদক।

দুদক সূত্র জানায়, পি কে হালাদারের বান্ধবী ও অন্যতম সহযোগী নাহিদা রুনাইসহ অন্যান্য আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহার করে আনান কেমিক্যাল লিমিটেড নামে একটি নাম সর্বস্ব প্রতিষ্ঠানকে ৭০ কোটি টাকার ঋণ দেয়। ঋণ উত্তোলনের পর আনান কেমিক্যালের সেই টাকা আবারও পি কে হালদার ও তার সহযোগীসহ সবাই মিলে আত্মসাৎ করেছে।

দুদক কর্মকর্তারা জানান, শুভ্রা রানী ঘোষ নাম সর্বস্ব প্রতিষ্ঠান ওকায়ামা লিমিটেডের নামে জাল কাগজপত্র তৈরি করে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে ৮৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা তুলে সহযোগীদের নিয়ে আত্মসাৎ করেন। আনান কেমিক্যাল ও ওকায়ামার নামে নেওয়া ঋণের বড় একটি অংশ পাচার করে কানাডায় নিয়ে গেছেন পি কে হালদার।

দুদকের একজন কর্মকর্তা জানান, ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় প্রায় ১১ শ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের বিষয়ে তদন্ত চলছে। এখন পর্যন্ত এসব মামলায় ১১ জনকে গ্রেফতার করেছে দুদক। এর মধ্যে ৮ জন নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

অর্থসূচক/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •